পিএসজির চোখ রাঙানি সত্ত্বেও ব্রাজিল দলে নেইমার, খেপেছে পিএসজি

ব্রাজিলিয়ান তারকার ক্লাব পিএসজির কোচ টমাস টুখেল পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, নেইমার যেহেতু চোটে পড়েছেন, এমন পরিস্থিতিতে দেশের হয়ে খেলা তাঁর ঠিক হবে না। এটি বাজে বার্তা দেবে সবাইকে। টুখেল মনে করেন, চোট পাওয়ার পরও নেইমার খেললে সেটির অর্থ হলো তাঁর চোট নেই।
চোট পাওয়ায় মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন নেইমার জুনিয়র। কিন্তু বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে দক্ষিণ আমেরিকায় যাচ্ছেন এই পিএসজি ফরোয়ার্ড। কারণ দল থেকে তার নাম বাদ দেননি ব্রাজিল কোচ তিতে। কিন্তু বিষয়টি হজম করতে পারছে না পিএসজি।বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ব্রাজিলের হয়ে নেইমারের খেলা উচিত হবে কি না, তা নিয়ে চলছে তর্ক–বিতর্ক।
নেইমারের নাম বাদ না দিলেও আগামী ১৩ ও ১৭ নভেম্বর যথাক্রমে ভেনেজুয়েলা ও উরুগুয়ের বিপক্ষে দুই ম্যাচের জন্য তার বিকল্প হিসেবে ডাকা হয়েছে ফ্ল্যামেঙ্গোর স্ট্রাইকার পেদ্রোকে। ব্রাজিল দলের চিকিৎসক ডা. রদ্রিগো লাসমার জানিয়েছেন, দলের সঙ্গে নেইমারকে রাখার কারণ হচ্ছে দ্বিতীয় ম্যাচেই তাকে মাঠে নামানোর সম্ভাবনা আছে। দলের সঙ্গে থেকে এক সপ্তাহ অনুশীলন চালিয়ে যাবেন তিনি।

এই মৌসুমে ধারাবাহিকভাবে ইনজুরি সমস্যায় ভুগছে পিএসজি। নেইমার ও এমবাপ্পে আগেই ছিটকে গেছেন। সর্বশেষ লাইপজিগ ম্যাচে মার্কো ভেরাত্তি এবং হুয়ান বের্নাট ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন। শুধু কি তাই, দলের রক্ষণভাগের প্রাণ প্রেসনেল কিম্পেম্বে এবং অভিজ্ঞ গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকেও পাবেন না টুখেল। দুজনেই বড় ধরনের চোটে পড়েছেন। এছাড়া মাংসপেশির ব্যথায় ছিটকে যেতে পারেন পাবলো সারাবিয়াও।

চ্যাম্পিয়নস লিগে গত ২৮ অক্টোবর ইস্তাম্বুল বাশাকশেহিরের বিপক্ষে ঊরুতে চোট পান নেইমার। পিএসজির পক্ষ থেকে তখন বলা হয়েছিল, চোট থেকে সেরে উঠতে আন্তর্জাতিক বিরতি শেষ হওয়া পর্যন্ত নেইমারকে মাঠের বাইরে থাকতে হবে।

নেইমার চোট পাওয়ার দুই দিন পরই টুখেল জানিয়ে দিয়েছিলেন, এমন পরিস্থিতিতে দেশের হয়ে খেলা তাঁর ঠিক হবে না, ‘আমার মনে হয় না ওর (ব্রাজিলের হয়ে) খেলা সম্ভব হবে। খেললে মনে হবে ও চোট পায়নি। এটা বাজে বার্তা দেয়। আমি যেটা জানি, ও (আন্তর্জাতিক) বিরতির পর ফিরবে।’

এদিকে নেইমারকে জাতীয় দলে ডাকা হবে—এ বিষয়টি বৃহস্পতিবার পিএসজিকে জানিয়েছে ব্রাজিলের ফেডারেশন। সিবিএফের বিবৃতিতে জাতীয় দলের সমন্বয়ক জুনিনিও পউলিস্তা বলেছেন, ‘আমরা জানি চোট নিয়ে ওর ক্লাব চিন্তিত। কিন্তু আমরা নিশ্চিত করেছি খুব ভালোভাবে ওকে পর্যবেক্ষণ করা হবে।’ কোচ তিতে নাকি পিএসজির ক্রীড়া পরিচালক লিওনার্দোকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি ‘কখনোই খেলোয়াড়ের স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি নেবেন না’—জানিয়েছেন জুনিনিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *