নেইমার চ্যাম্পিয়নস লিগের আগামী মৌসুমে প্রথম তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ

গুরুতর অভিযোগ, এবার ধর্ষণের বিতর্কনইমারের বিরুদ্ধে

চ্যাম্পিয়নস লিগের গত মৌসুমে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল পিএসজি। ম্যাচের পর নেইমার ইনস্টাগ্রামে গালাগাল করেছিলেন উয়েফাকে।এ জন্য পিএসজি তারকাকে তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছিল ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা। শাস্তির বিপক্ষে আপিল করেছিল নেইমারের ক্লাব পিএসজি। কিন্তু উয়েফা সেই আপিল খারিজ করে শাস্তি বহাল রেখেছে। অর্থাৎ চ্যাম্পিয়নস লিগের আগামী মৌসুমে প্রথম তিন ম্যাচ খেলতে পারবেন না ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। 
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে হ্যান্ডবলের ছবির স্ক্রিনশট পোস্ট করে নেইমার লেখেন, ‘এটা লজ্জার। উয়েফা এখনো চার ব্যক্তির ওপর দায়িত্ব দিয়ে যাচ্ছে, যারা ফুটবল ও ভিএআর রিভিউ নিয়ে কিছুই জানে না। এটি হ্যান্ডবল না। পেছনে হ্যান্ডবল হয় কীভাবে?’ এতটুকু বলেই উয়েফাকে বেশ কিছু খিস্তিখেউড় করেন নেইমার। আর সেটাই নজরে আসে ইউরোপের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থার। শাস্তি বহাল থাকায় চ্যাম্পিয়নস লিগের আগামী মৌসুমে গ্রুপপর্বের প্রথম তিন ম্যাচে খেলতে পারবেন না নেইমার।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *