আবারও আফ্রিকার সেরা ফুটবলার মোহাম্মদ সালাহ

মিশর ও লিভারপুলের ফরোয়ার্ড খেলোয়াড় মোহাম্মদ সালাহকে বিবিসি আফ্রিকান ফুটবলার অফ দ্য ইয়ার-২০১৮ ঘোষণা করা হয়েছে। ২৬ বছর বয়সী সালাহ ফুটবলার অফ দ্য ইয়ার-২০১৮ হবার জন্য পরাজিত করেছেন মেদি বেনিতিয়া, কালিদু কুলিবালি, সাদিও মেন এবং থমাস পার্টিকে । গত মৌসুমে লিভারপুলের হয়ে ৫২ ম্যাচে রেকর্ড ৪৪ গোলের পর এ মৌসুমে এখন পর্যন্ত করেছেন ১৩ গোল করেছেন লিভারপুলের মিসরীয় ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ।
বর্ষসেরা নির্বাচনে বিবিসির ওয়েসাইটে এবার ভোট দিয়েছেন প্রায় সাড়ে ছয় লাখ সমর্থক। ভোটাভুটিতে মেধি বেনাতিয়া, কালিদু কোলিবালি, সাদিও মানে ও থমাস পার্টেকে হারিয়ে সালাহই হাসেন বিজয়ীর হাসি। নিজের অনুভূতি ব্যাক্ত করতে গিয়ে মোহাম্মদ সালাহ বলেন, “এটা আবার জিততে খুব ভালো অনুভূতি। আমি খুশি এবং আগামী বছরও এটি জিততে চাই!” । তার আগে টানা দু’বার এ পুরস্কার জেতার কীর্তি ছিল শুধু নাইজেরিয়ার জে-জে ওকোচার।
এ বছরের আফ্রিকান ফুটবল ফেডারেশনের বর্ষসেরা ফুটবল খেলোয়াড়ের দৌড়েও এবার ফেভারিট লিভারপুলের মিসরীয় ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ। শুক্রবার ১০ জনের প্রাথমিক তালিকা ঘোষণা করেছে সিএএফ ২০১৮ সালের বর্ষসেরার পুরস্কারের জন্য । গতবারের বিজয়ী সালাহর পাশাপাশি এবার আরও মনোনয়ন পেয়েছেন সাদিও মানে, পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং, অ্যালেক্স ইয়োবি, রিয়াদ মাহরেজ, আন্দ্রে ওনানা, আনিস বদ্রি, দেনিস ওনিয়াঙ্গো, ওয়ালিদ সোলিমান ও মেধি বেনাতিয়া। আগামী ৮ জানুয়ারি ঘোষণা করা হবে এ বছরের আফ্রিকান ফুটবল ফেডারেশনের বর্ষসেরা ফুটবল খেলোয়াড়ের নাম।

পূর্ববর্তী বিজয়ীরা (২০০১ সাল থেকে ২০১৭ সাল নাগাদ বিজয়ীরা)

2017: মোহাম্মদ সালাহ (লিভারপুল ও মিশর)
2016: রিয়াদ মাহেরেজ (লেইসেস্টার সিটি ও আলজেরিয়া)
2015: ইয়ায় টৌরে (ম্যানচেস্টার সিটি ও আইভরি কোস্ট)
2014: ইয়াসাইন ব্রহ্মি (পোর্টো এবং আলজেরিয়া)
২013: ইয়ায় টৌরে (ম্যানচেস্টার সিটি ও আইভরি কোস্ট)
2012: ক্রিস কাটোংগো (হেনান নির্মাণ ও জাম্বিয়া)
2011: আন্দ্রে আয়ু (মার্সেইল এবং ঘানা)
2010: আসামাহ জ্ঞান (সুন্দরল্যান্ড এবং ঘানা)
২009: ডিডিয়ার ড্রোগ্বা (চেলসি ও আইভরি কোস্ট)
২008: মোহামেদ আফরিকিকা (আল আহলি ও মিশর)
2007: ইম্মানুয়েল অ্যাডবেয়ার (আর্সেনাল ও টোগো)
2006: মাইকেল এসসিয়ান (চেলসিয়া ও ঘানা)
2005: মোহাম্মদ বারাকাত (আল আহলি ও মিশর)
2004: জয়-জয় ওকোকা (বোল্টন ও নাইজেরিয়া)
2003: জয়-জে ওকোকা (বোল্টন ও নাইজেরিয়া)
2002: এল হাদজি দ্বিউফ (লিভারপুল ও সেনেগাল)
2001: স্যামি কফর (বায়ার্ন মিউনিখ ও ঘানা)

Leave a Reply

Your email address will not be published.