নেইমারের অনেক বড় আত্মার মানুষ: এমবাপের ঘটনায় পিএসজি কোচ

Neymar and Kylian Mbappe

 

বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগে মঙ্গলবার ম্যাচটি ১৪ মিনিটের মাথায় বন্ধ করে মাঠ ছেড়ে উঠে গিয়েছিলেন পিএসজি-বাসেকসেহির ফুটবলাররা। বুধবার ওই সময়ের পরেই খেলা শুরু হয়। মাঠে নামার আগে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে হাঁটু গেড়ে সংহতি প্রকাশ করেন দুই দলের খেলোয়াড়রা।

দলের এমন সংহতি প্রকাশকে সমর্থন করছেন টুখেলও। তার কথা, ‘তারা শক্ত একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, প্রতিপক্ষ দলের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছে। তারা সাহস দেখিয়েছে। লকার রুমেও এটা পরিষ্কার করেই তারা জানিয়েছিল, এভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাতে চায়।’

নিজের দুই গোল হয়ে গিয়েছিল। এমন সময় ডি-বক্সে বাধায় পড়ে পেনাল্টি জেতেন নেইমার। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে হ্যাটট্রিক করার সহজ সুযোগটা নেননি নেইমার, বল দিয়ে দেন সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপেকে।

এমবাপে ফর্মে নেই অনেকদিন। চ্যাম্পিয়নস লিগে টানা নয় ম্যাচে গোল পাননি। তাকে ছন্দে ফেরাতে নিজের স্বার্থ বিসর্জন দেন নেইমার। পেনাল্টিতে গোল করার পর আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়া এমবাপে এরপর বাসেকসেহিরের বিপক্ষে করেছেন আরও এক গোল। নেইমারকেও অবশ্য হতাশ হতে হয়নি। হ্যাটট্রিক পরে ঠিকই করেছেন।

ম্যাচ শেষে নেইমারের উদারতার উচ্ছ্বসিত প্রশংসাই করলেন পিএসজি কোচ টমাস টুখেল। তিনি বলেন, ‘এটা দারুণ ব্যাপার। সে বলটা দিয়ে দিল, যেটিতে তার হ্যাটট্রিক হতে পারতো। সেই ম্যাচেই নেইমারের তিন গোল করাটা অস্বাভাবিক। সে বলটি কিলিয়ানকে (এমবাপে) দিয়েছিল, যাতে করে চ্যাম্পিয়নস লিগে গোলখরা কাটাতে পারে।’

পিএসজি কোচ আরও বলেন, ‘নেইমারের আত্মাটা অনেক বড়। সে সবসময় তার সতীর্থদের কথা ভাবে। ফরোয়ার্ডদের জন্য এটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ সে ভালো করেই জানে, সে জানে কিলিয়ানের গোলটা কত দরকার ছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.