মাঠে ফিরেই ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমারের লাল কার্ড, হারল পিএসজি!

মাঠে ফিরেই ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমারের লাল কার্ড, হারল পিএসজি!

অলিম্পিক লিয়নকে ৪-২ গোলে উড়িয়ে দিয়ে আন্তর্জাতিক সূচির বিরতিতে গিয়েছিল ফ্রেঞ্চ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। ইউরোপিয়ান ফুটবলারদের জন্য এটি আন্তর্জাতিক সূচির বিরতি হলেও, নেইমার তথা লাতিন অঞ্চলের জন্য এটি ছিল একপ্রকার ছুটি। কেননা আগেই স্থগিত করা হয়েছিল লাতিন আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাই।

চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরার পর এই প্রথম পিএসজির শুরুর একাদশে খেলেছেন নেইমার। কিন্তু শুরুর একাদশে ফেরাটা আর রাঙানো হলো না ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের। উল্টো নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়ে শেষ করেছেন ম্যাচটা! শনিবার ক্লাব ফুটবল ফেরার রাতে লাল কার্ড দেখেছেন তিনি। যার ফলে খেলতে পারবেন না পরের ম্যাচে। অর্থাৎ বলা চলে, ছুটি কাটিয়ে ফিরে আবার এক ম্যাচের ছুটি পেয়ে গেলেন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) এ ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার।

নেইমারের লাল কার্ড দেখার দিনে ইতিবাচক ফল পায়নি তার দলও, হেরে গেছে শিরোপার দৌড়ে সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী লিলের কাছে। একমাত্র গোলে পাওয়া জয়ে পিএসজিকে দুইয়ে নামিয়ে ফের শীর্ষস্থান দখল করেছে লিল।

নেইমার না পেয়েছেন গোল করতে, না গোল করাতে পেরেছেন। উল্টো ম্যাচের শেষ মুহূর্তে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছেন। এই নিয়ে ২০২০ সালের পর থেকে এ নিয়ে তৃতীয় লাল কার্ড দেখেছেন নেইমার। এই সময়ের মধ্যে ফ্রেঞ্চ লিগে তাঁর চেয়ে বেশি লাল কার্ড দেখেননি আর কোনো খেলোয়াড়।

অথচ নিজেদের ঘরের মাঠে পরিসংখ্যানের বিচারে সবকিছুতেই এগিয়ে ছিল পিএসজি। ম্যাচের প্রায় ৭০ শতাংশ সময় বলের দখল রেখেছিল নিজেদের কাছে, অন্তত ১৬ বার উঠেছে জোরালো আক্রমণে। কিন্তু কাজের কাজ গোলটি আর পায়নি মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা।