দলবদলের নতুন নাটক, বেলকে নাও নেইমারকে দাও!

ছয় বছরে রিয়ালের হয়ে ১৪টি শিরোপা জিতলেও কখনই ঠিক ধারাবাহিক ছিলেন না বেল। ২৩১ ম্যাচে করেছেন ১০২ গোল। জিনেদিন জিদান সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন, বেলকে আর দরকার নেই রিয়ালের। যত দ্রুত সম্ভব ওয়েলস তারকাকে বিক্রি করে দিতে চান জিদান।ব্রিটিশ মিডিয়ার ভাষ্য, ওয়েলস তারকাকে নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা আছে রিয়ালের। বেলকে ব্যবহার করে তারা দলে ভেড়াতে চায় পিএসজি ছাড়তে উন্মুখ ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড নেইমারকে! নেইমার নিজে অবশ্য ফিরতে চান তার সাবেক দল বার্সেলোনায়। কিন্তু দুই ক্লাবের তিক্ত সম্পর্কের কারণে বার্সার কাছে তাকে বিক্রি করতে আগ্রহী নয় পিএসজি।
এর আগে তিনবার নেইমারকে দলে টানার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে রিয়াল। এবার তাই মিশনে নেমেছে তারা। নেইমারের বদলে বেলকে দেয়ার পাশাপাশি উপযুক্ত ট্রান্সফার ফি গুনতেও রাজি রিয়াল। এ প্রস্তাবে পিএসজি রাজি না হলে বেলকে বিদায় করার বিকল্প পথ খুঁজতে হবে রিয়ালকে। ইউরোপের বড় দলগুলোর মধ্যে বেলের ব্যাপারে কিছুটা আগ্রহ আছে টটেনহ্যাম, ম্যানইউ, ইন্টার মিলান ও বায়ার্ন মিউনিখের। কিন্তু সবারই প্রথম শর্ত বেতন অর্ধেক কমাতে হবে বেলকে। রিয়ালে কর পরিশোধের পর বছরে ১৭ মিলিয়ন ইউরো বেতন পান বেল। ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা পেছনে ফেলে আসা ওয়েলস ফরোয়ার্ডকে এখন এত বেতন দিতে রাজি নয় ইউরোপের কোনো ক্লাব।
অন্যদিকে, এ মুহূর্তে বেলকে দলে ভেড়াতে সবচেয়ে বেশি আগ্রহী চীনের দুটি ক্লাব। চীনে পাড়ি জমালে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বেতন পাওয়া খেলোয়াড় হবেন বেল।
চীনের দুই ক্লাব জিয়াংসু সানিং ও বেইজিং গুয়ান বেলকে বর্তমান বেতনের চেয়েও বেশি দিয়ে দলে নিতে আগ্রহী। বেইজিং গুয়ান দিয়েছে রেকর্ড পারিশ্রমিকের প্রস্তাব। সপ্তাহে ১০ লাখ পাউন্ড! বেলের জন্য প্রস্তাবটা লোভনীয় হলেও সমস্যা অন্য জায়গায়। রিয়ালকে টান্সফার ফি দিতে অনিচ্ছুক চীনা ক্লাবগুলো। চীনা ফুটবলের নতুন নিয়ম অনুযায়ী বিদেশি কোনো খেলোয়াড় কিনলে ট্রান্সফার ফি’র সমান অর্থ ঘরোয়া ফুটবলের উন্নয়ন তহবিলে জমা দিতে হবে। অর্থাৎ বেলের দাম ১০০ মিলিয়ন ইউরো হলে চীনা ক্লাবের খরচ হবে ২০০ মিলিয়ন ইউরো। এই জট না খুললে চীনে যাওয়াও কঠিন হবে বেলের জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *