বিশ্বের সবচেয়ে ‘দামি’ একাদশে নেইমার, জায়গা হয়নি মেসি-রোনালদোর!

 

ইউরোপিয়া ফুটবলের দলবদলের বাজার অনুযায়ী অথবা যদি ট্রান্সফার ফিকে ধরা হয় মানদণ্ড, তাহলে ফুটবল দলের সেরা এগারোতেও থাকছেন না মেসি কিংবা রোনালদো। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত একই ক্লাবে খেলায় দলবদলের বাজারে মেসির মূল্য কার্যত শূন্য। কারণ তিনি কখনও দলবদলই করেননি। অন্যদিকে গত মৌসুমে ১১২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে নাম লিখিয়েছিলেন রোনালদো।
তবু দামী একাদশে নেই রোনালদো। কারণ তার চেয়ে বেশি মূল্যে দলবদলের নজির রয়েছে নেইমার, এমবাপে, কৌতিনহোদের। যে কারণে বিশ্বের সবচেয়ে দামী একাদশের আক্রমণভাগে জায়গা হয়নি রোনালদোর।
সোমবার বিশ্বরেকর্ড গড়ে ৮৮ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে লিস্টার সিটি থেকে ইংলিশ ডিফেন্ডার হ্যারি মাগুইরেকে দলে নিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ক্লাব ফুটবলে তার চেয়ে দামী ডিফেন্ডার নাই আর কেউই।
মূলত মাগুইরের দলবদলের পরই আলোচনায় আসে বিশ্বের দামী একাদশের কথা। যেখানে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে রয়েছেন ৬ জন, লা লিগা থেকে ২, ফ্রেঞ্চ লিগ থেকে ২ এবং বুন্দেসলিগা থেকে ১ জন খেলোয়াড়,

দেখে নিন বিশ্বের সবচেয়ে দামী একাদশে কারা আছেন:

গোলরক্ষক: কেপা আরজিবালাগা (চেলসি, ৮০ মিলিয়ন ইউরো)

রক্ষণভাগ: কাইল ওয়াকার (ম্যানচেস্টার সিটি, ৫৬.৭ মিলিয়ন ইউরো), ভার্জিন ফন ডাইক (লিভারপুল, ৮৫ মিলিয়ন ইউরো), হ্যারি মাগুইরে (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ৮৮ মিলিয়ন ইউরো), লুকাস হার্নান্দেজ (বায়ার্ন মিউনিখ, ৮০ মিলিয়ন ইউরো)

মধ্যমাঠ: রদ্রি (ম্যানচেস্টার সিটি, ৭০ মিলিয়ন ইউরো), পল পগবা (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ১০৫ মিলিয়ন ইউরো), ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং (বার্সেলোনা, ৭৫ মিলিয়ন ইউরো)

আক্রমণভাগ: ফিলিপে কৌতিনহো (বার্সেলোনা, ১২০ মিলিয়ন ইউরো), নেইমার (প্যারিস সেইন্ট জার্মেই, ২২২ মিলিয়ন ইউরো), কাইলিয়ান এমবাপে (প্যারিস সেইন্ট জার্মেই, ১৮০ মিলিয়ন ইউরো)

Leave a Reply

Your email address will not be published.