জেদ্দায় “হালাল নাইটক্লাব” খুলছে সৌদি আরব! বিতর্ক চরমে

জেদ্দায় হালাল নাইটক্লাব খুলছে সৌদি

সৌদিতে বেশ কিছুদিন ধরেই সঙ্গীতানুষ্ঠানের হিড়িক পড়েছে। গত এক বছরে সৌদির বিভিন্ন শহরে মারিয়াহ ক্যারে, ইনরিক, দ্য ব্ল্যাক আইড পিস, ডেভিড গুয়েতা, তিয়েসতো, সিন পল এবং অ্যাকনের মতো বিশ্বের খ্যাতনামা শিল্পী ও মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনায় বেশ কিছু সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। গত কয়েক মাসে নারীপুরুষের অংশগহণে বেশ কিছু ক্যাফেতে পার্টির আয়োজন করা হয়। কিন্তু সৌদি সরকার লাইসেন্স না দেয়ায় উদ্যোক্তারা এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি। এমনকি গত বছর এ ধরনের একটি মিউজিক্যাল পার্টির আয়োজন করায় একটি ক্যাফে বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।  কট্টরপন্থী সৌদির সংস্কৃতিতে অনেকদিন ধরেই নানা পরিবর্তন এসেছে। নিজের চিরচেনা খোলস থেকে বেরিয়ে আসছে তারা। নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেয়া, সিনেমা হল নির্মাণ, মাঠে বসে নারীদের খেলা দেখার অনুমতিসহ অনেক কিছুতেই পরিবর্তন এনেছে সৌদি। এরই অংশ হিসেবে এবার জেদ্দায় ‘হালাল’ নাইটক্লাব খুলতে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের এই কট্টরপন্থী দেশটি। অ্যাডমাইন্ড হসপিটালিটি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দুবাই ও বৈরুতের বিখ্যাত ব্র্যান্ড নাইটক্লাব হোয়াইটের কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে সৌদি আরবের জেদ্দায়। এতে বিলাসবহুল ক্যাফে এবং লাউঞ্জ থাকবে। 
এই হালাল নাইটক্লাবে ওয়াটারফ্রন্ট থাকবে, এর সাথে থাকবে বিশ্বের খ্যাতনামা মিউজিক গ্রুপের পরিবেশনা। ইলেক্ট্রনিক ডান্স মিউজিক, কমার্সিয়াল মিউজিক, আরএনবি এবং হিপহপ মিউজিক উপভোগ করা যাবে এখানে। এই নাইটক্লাবের লাউঞ্জের একটি অংশে থাকবে ড্যান্স ফ্লোর। নারী পুরুষ সবার জন্যে ড্যান্স এটা উন্মুক্ত থাকবে। হোয়াইটের সব ধরনের সুযোগ সুবিধাই এখানে পাওয়া যাবে। তবে এই নাইটক্লাবে মদ পাওয়া যাবে না। কারণ সৌদিতে মদ কেনাবেচা অবৈধ। কেউ যদি মদ কেনাবেচা করে তবে তাকে শাস্তি পেতে হয়।
পবিত্র নগরী মক্কা শহরের পাশে এমন কার্যক্রম শুরুর বিষয়ে দেশটির অধিকাংশ নাগরিকই অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। তবে নাগরিকদের মধ্যে সমালোচনা ও বিতর্ক থাকলেও দেশটির সরকার এসব ব্যাপারে কোনো কিছু স্পষ্ট করেনি। খবর বিবিসি আরবি। এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকে সৌদি সরকারের নাইট ক্লাব চালুর উদ্যোগের কঠোর সমালোচনা করেছেন। অনলাইনে বেশ চটুল আলোচনার জন্ম হয়েছে। অনেকেই এটা নিয়ে মজা করছেন। কারণ হালাল নাইট ক্লাবের ধারণাটি প্রথম। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হ্যাশট্যাগ জেদ্দায় ডিসকো বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
হোয়াইটের চালু করা নতুন ক্লাবটি রাত ১০টা থেকে ভোর ৩টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে এতে ১৮ বছরের কম বয়সীদের প্রবেশের অনুমতি থাকবে না। নাইটক্লাবটিতে প্রবেশমূল্য রাখা হয়েছে ৫০০ থেকে ১০০০ রিয়াল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ওই নাইটক্লাবের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে, যাতে হোয়াইটের একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তিকে কথা বলতে শোনা যায়। বিনোদনের জন্য ডিস্কোকে একটি সম্মানিত কাজ হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়াই বেশি পাওয়া যাচ্ছে। নাইটক্লাব খোলার বিষয়ে সৌদি সরকারের নীরবতাকে কর্তৃপক্ষের আবিষ্কৃত ‘নতুন ধর্ম’ হিসেবে আখ্যায়িত করছেন সমালোচকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.