দিদির ‘খেলা শেষ হবে’, আগামী ২ মে বিদায়: মোদি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে ঘিরে আবারও নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথিতে নির্বাচনী জনসভায় অংশ নেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এখানে তিনি রাজ্যের ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধলেন বাক্যবাণে। এই সময় মোদি বলেন, ‘দিদির খেলা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এবার। তাঁর খেলা বুঝে ফেলেছে ছোট্ট শিশুরাও। দিদির সময় শেষ হয়ে এসেছে। ২ মে বিদায় নিতে হবে। তাঁর জন্য দরজা খুলে রাখা হয়েছে।’

পশ্চিমবঙ্গে দুই মেয়াদের তৃণমূল শাসনের সমালোচনা করে মোদি আরও বলেন, ‘তৃণমূলের পাপের ঘড়া ভরে গেছে। এবার শেষ হয়ে যাচ্ছে দিদির খেলা। শেষ হয়ে যাচ্ছে দিদির তোলাবাজি, চাঁদাবাজি, সিন্ডিকেটের রাজনীতির খেলা। এবার এখানে শুরু হবে উন্নয়ন। দিদির কুশাসনের বিরুদ্ধে বিজেপির হাত ধরে বাংলায় শান্তি ফিরিয়ে আনার কাজ।’

মমতার রাজ্য সরকারের দুর্নীতির অভিযোগ সামনে এনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আম্পানের কোটি কোটি টাকা কোথায় গেল? সেটা চলে গেছে ভাইপোর কোম্পানিতে। ক্ষমতায় এসে তা খুঁজে বের করবে বিজেপির নতুন সরকার। তাইতো এবার বাংলা থেকে দিদি যাচ্ছেন, আসল পরিবর্তন আসছে।’

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ায় এক জনসভায় অংশ নেন মোদি।এসময় তৃণমূল কংগ্রেসের নির্বাচনী প্রচারণার “খেলা হবে” স্লোগানের জবাবে “খেলা শেষ হবে”বলতে শোনা যায় স্বয়ং মোদিকে। এরমধ্য দিয়ে যেন অনেকটা প্রচ্ছন্ন হুমকিই দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে ওই জনসভায় মোদি আরও বলেন, “বাংলার ভাইবোনেদের নিয়ে চিন্তার খেলা আপনি ১০ বছর খেলেছেন, এবার খেলা শেষ হবে, বিকাশ শুরু হবে। বাংলার মানুষের থেকে খেলার চিন্তা বেশি তৃণমূলের। দিদি ভুলে যাচ্ছেন, বাংলার জনতা বিরোধিতায় তৈরি। ১০ বছর ধরে বিশ্বাসঘাতকতা, দুর্নীতির এবার শেষ হবে বিধানসভা ভোটে। আপনি খেলতে থাকুন, বাংলার মানুষের স্মৃতিশক্তি খুব জোর। গাড়ি থেকে বেরিয়ে কীভাবে লোককে ধমকেছেন সবার সব মনে আছে।”