মুখ্যমন্ত্রী হতে সৌরভ গাঙ্গুলি কি শেষ পর্যন্ত বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন!

বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন সৌরভ গাঙ্গুলি, হবেন মুখ্যমন্ত্রী!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, গত রোববার বিকেলে কলকাতার রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন সৌরভ। এর পরদিনই অর্থাৎ সোমবার দিল্লির একটি অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে একই মঞ্চে দাঁড়িয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি।

জল্পনা ছিল আগে থেকেই, তার ওপর একের পর এক ইঙ্গিতপূর্ণ ঘটনা। ফলে সৌরভ গাঙ্গুলির বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আলোচনা আবারও ডানা মেলেছে আকাশে। অনেকেই বলছেন, গেরুয়া শিবির থেকেই রাজনীতির মাঠে নামছেন পশ্চিমবঙ্গের ‘মহারাজ’।

এটি নিয়ে আবার ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করে জল্পনা আরও উসকে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সরাসরি না বলে কিছুটা ঘুরিয়ে-পেঁচিয়ে তিনি জানালেন, ‘ভালো’ লোকদের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচন সামনে রেখে এর আগেও সৌরভ গাঙ্গুলির নাম আলোচনায় এসেছে। এমনকি বঙ্গবাসীর প্রাণপ্রিয় ‘দাদা’কে বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী করতে পারে বলেও শোনা যাচ্ছে।

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সফরে গিয়ে এমন একটি প্রশ্নের জবাবে অমিত শাহ বলেছিলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর তালিকায় অনেকের নাম রয়েছে। সেটি একেবারে ছোট নয়।’ তবে সৌরভের প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি খারিজও করেননি বিজেপির এই শীর্ষ নেতা।
তাছাড়া, সৌরভ গাঙ্গুলির ৪৮তম জন্মদিনে তার স্ত্রী ডোনার ইঙ্গিতবহ এক মন্তব্যে সেই জল্পনার হাওয়া আরও জোরদার হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ বিজেপিতে সৌরভ বড় পদ পেতে যাচ্ছেন কি না জানতে চাইলে ডোনা বলেছিলেন, ‘সৌরভ যে পিচেই খেলেন, সেখানেই শীর্ষে থাকেন। রাজনীতিতে যোগ দিলে সেখানেও শীর্ষেই থাকবেন।’

এরপর দুর্গাপূজার সময় ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এক অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেছিলেন সৌরভপত্নী। এ নিয়েও বাড়ে জল্পনা।

এতগুলো ঘটনার মধ্যে রোববার রাজ্যপালের সঙ্গে দুই ঘণ্টা বৈঠক করেন সৌরভ। তার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় অরুণ জেটলির মূর্তি উন্মোচন করতে একই মঞ্চে হাজির হন অমিত শাহের সঙ্গে। ফলে অনেকেই মনে করছেন, ‘দাদা’র বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ঘোষণা এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস