ফরাসি কাপ হারিয়ে বেসামাল নেইমার! ভক্তের মুখে ঘুষি মারলেন নেইমার!

চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়ার পর ঘরোয়া ‘ডাবল’ জেতার স্বপ্নে বিভোর ছিল পিএসজি। লিগ তো জেতা হয়ে গেছেই, ফরাসি কাপ জিতলেই ডাবল হয়ে যেত নেইমারদের। কিন্তু তা আর হলো কোথায়? রেনেঁর কাছে পেনাল্টিতে হেরে কাপ জয়ের শিরোপা বিসর্জন দিয়েছে পিএসজি। কাপ হারানোর সঙ্গে সঙ্গে মেজাজও হারিয়েছেন নেইমার। ম্যাচ শেষে পুরস্কার প্রদানের সময় এক সমর্থকের ওপর চড়াও হন এই ব্রাজিলীয় তারকা।
শনিবার রাতে কোপা দি ফ্রান্সে লিগ ওয়ানের শিরোপাজয়ী পিএসজিকে হারিয়েছে রেনে। ম্যাচে ২-২ গোলে নির্ধারিত সময় শেষ হয়। ট্রাইব্রেকারে শিরোপা জেতে রেনে।যদিও ম্যাচের শুরুতেই চমক দেখিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার।ম্যাচের মাত্র ১৩তম মিনিটে নেইমারের কর্নারে ডি-বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত ভলিতে দলকে এগিয়ে দেন দানি আলভেস।এর পর ২১ মিনিটের মাথায় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন নেইমার নিজেই। পরে ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ালে ৬-৫ ব্যবধানে পিএসজিকে হারায় রেনেঁ। ম্যাচ শেষে নিজের মেজাজ হারিয়ে ফেলেন নেইমার। তবে শেষমেষ রেনের কাছে হেরে নেইমার বিমর্ষ ছিলেন। এর পর খেলা শেষে সাজঘরে ফিরছিলেন তিনি। গ্যালারির ভেতরের সিঁড়ি বেয়ে সাজঘরে যাচ্ছিলেন পিএসজির অন্য ফুটবলাররা। ভক্তদের আবদার মিটিয়ে হাতে হাতও মেলাচ্ছিলেন তারা।

কিন্তু এক ভক্ত সম্ভবত নেইমারের কাছে সেলফির আবদার করেন। নেইমার রাজি না হতেই তিনি কিছু একটা বলেন। আর তখনই নেইমার তার মুখে একটা ঘুষি বসিয়ে দিয়ে ও পরে উঠে যান।  নেইমারের এই লজ্জাজনক মুহূর্ত ধরা পড়েছে বেশ কিছু দর্শকের মোবাইল ফোনে। তাঁরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোয় ভিডিওটা ছড়িয়ে দিতে দেরি করেননি। ভিডিওতে দেখা গেছে, ম্যাচ শেষে গ্যালারির দর্শকদের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন পিএসজির খেলোয়াড়েরা, রানার্সআপ মেডেল নেওয়ার জন্য। আশপাশের দর্শকেরা প্রিয় খেলোয়াড়দের ছবি তুলছেন, ভিডিও করছেন। নেইমারের বিষয়টা পছন্দ হয়নি। এক ভক্তের হাত থেকে ফোন কেড়ে নিতে চাইলেন তিনি। শুধু তা–ই নয়, ফোন না কাড়তে পেরে তাঁর দিকে ঘুষি মারতে গিয়েছেন নেইমার। পরে পিএসজির অন্য খেলোয়াড়েরা তাঁকে ধরাধরি করে ওপরে নিয়ে যান। এখনো জানা যায়নি সেই ভক্ত নেইমারকে উসকানিমূলক কিছু বলেছিলেন কি না। দুজনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হচ্ছে বোঝা গেলেও নেইমার রেগেমেগে সে সমর্থককে কী বলেছেন, সেটাও জানা যায়নি। তবে যা বোঝা গেছে, তাতেই যে নেইমার বিরাট এক সমস্যায় পড়তে যাচ্ছেন, তা বলাই বাহুল্য।

এর আগে নেইমার চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোয় পিএসজির হারের ম্যাচে রেফারিকে গালি দেন ইনস্টাগ্রামে। উয়েফা শাস্তি স্বরূপ আগামী মৌসুমের গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে তাকে নিষিদ্ধ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.