টি-টোয়েন্টিতেও ৪ বলে ৪ উইকেট নিলেন ইয়র্কার মাস্টার লাসিথ মালিঙ্গা

লাসিথ মালিঙ্গা প্রথম বোলার হিসেবে দুই সংস্করণে দুটি অনন্য হ্যাটট্রিকের নজির গড়লেন ইয়র্কার মাস্টার। ওয়ানডেতে একমাত্র বোলার হিসেবে ৪ বলে ৪ উইকেট নেয়ার রেকর্ড আছে লাসিথ মালিঙ্গার। এবার টি-টোয়েন্টিতেও সেই কীর্তি গড়লেন তিনি। শুক্রবার পাল্লেকেলেতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজের দ্বিতীয় ওভারের শেষ ৪ বলে ৪ উইকেট নেন মালিঙ্গা। 

ওভারের দ্বিতীয় বল কলিন মানরোর ব্যাট-প্যাডের ফাঁক গলে আঘাত করে স্টাম্পে। পরের বল লাগে হামিশ রাদারফোর্ডের প্যাডে। জোরালো আবেদন করেন বোলার। তবে সাড়া দেননি আম্পায়ার। ফলে রিভিউ নেন লংকান কিংবদন্তি। টিভি রিপ্লেতে স্পষ্ট দেখা যায়, বল আঘাত করছে স্টাম্পে। ফলে উইকেট পান তিনি। তৃতীয় বল নিখুঁত ইয়র্কার শেষ মুহূর্তে সুইং করে ভেঙে দেয় কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের অফ স্টাম্প। এতে হ্যাটট্রিকের উল্লাসে মেতে ওঠেন ৩৬ বছর বয়সী পেসার। ওভারের শেষ বলে রস টেইলরকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ফেরান তিনি। এতে ৪ বলে ৪ উইকেটের অনন্য কীর্তি গড়েন গতিতারকা। পরের ওভারে টিম সেইফার্তকে ফিরিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ৫ উইকেট পূর্ণ করেন মালিঙ্গা। এদিন ৫ উইকেট নিতে খরচ করেন মাত্র ৬ রান। এ নিয়ে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে তার মোট উইকেট হলো ১০৪টি।
এর আগে ২০১৭ সালের এপ্রিলে কলম্বোতে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি হ্যাটট্রিক করেন তিনি। টানা তিন বলে ফিরিয়ে দেন মুশফিকুর রহিম, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মেহেদী হাসান মিরাজকে।

বিশ্ব আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ৪ বলে ৪ উইকেট নেয়ার ঘটনা দেখে ২০০৭ ওয়ানডে বিশ্বকাপে। দক্ষিণ আফ্রিকার ৪ ব্যাটসম্যানকে টানা ৪ বলে ফেরান মালিঙ্গা। সেবার অবশ্য দুই ওভারে এ কৃতিত্ব দেখান তিনি। ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিকের মালিক মালিঙ্গা। এ ফরম্যাটে ৩টি হ্যাটট্রিক রয়েছে তার। একদিনের ক্রিকেট ইতিহাসে ২টির বেশি হ্যাটট্রিক নেই কারো। মালিঙ্গার অবিস্মরণীয় রেকর্ডের দিনে বড় জয় পেয়েছে শ্রীলংকা। কিউইদের ৩৭ রানে হারিয়েছে তারা। এর সুবাদে ৩ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশের হাত রেখে পেয়েছেন স্বাগতিকরা। ইতিমধ্যে প্রথম দুটি জিতে সিরিজ বগলদাবা করেছেন সফরকারীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.