আর্সেনালকে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম শিরোপা জয় মেসি ছাড়া বার্সার!

মৌসুম শুরুর আগে আরও দুই ম্যাচ খেলবে বার্সা। সেই ম্যাচগুলোতে হয়তো থাকবেন তারকা ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসি। তবে এই ম্যাচে ছিলেন না তিনি, তার মতো দলের বাইরে ছিলেন ফিলিপে কৌতিনিয়ো, আর্তুরো ভিদাল। তবে প্রাপ্ত খেলোয়াড়দের সবাইকে সুযোগ দেওয়ার কৌশল নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন কোচ ভালভারদে। যদিও তা করেছিলেন দ্বিতীয়ার্ধে। মৌসুম শুরু করতে এখনও দুই সপ্তাহ বাকি স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার। তার আগে প্রস্তুতিটা তারা ঝালিয়ে নিলো হোয়ান গাম্পার ট্রফি জিতে। পিছিয়ে গিয়েও আর্সেনালকে তারা হারিয়েছে ২-১ গোলে।
প্রীতি ম্যাচ। তার ওপর দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি খেলেননি, তবু ন্যু ক্যাম্পের গ্যালারিতে ৯৯ হাজার দর্শক! মাঠ ভর্তি এই সমর্থনের মাঝেই লুইস সুয়ারেজের শেষ মুহূর্তের ঝলকে আর্সেনালকে ২-১ গোলে হারিয়ে গাম্পের ট্রফি জিতেছে বার্সেলোনা। মাঠে এত দর্শক আগ্রহের কারণটা কি? আসলে এদিনই ঘরের মাঠে প্রথমবারের মতো খেলতে নেমেছিলেন বার্সেলোনার নতুন সাইনিং অ্যাটলেটিকো ছেড়ে আসা অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান। সঙ্গে ফ্রাঙ্কি ডি জংও। মেসি না খেললেও ঘরের নতুন দুই অতিথিকে স্বাগত জানাতেই মূলত এত দর্শক মাঠ মাতিয়েছেন।
ম্যাচে অবশ্য এত দর্শক সমর্থনের মাঝেও প্রথমে পিছিয়ে পড়েছিল বার্সেলোনাই। পিয়েরে-এমেরিক আউবামেয়াংয়ের গোলে ৩৬ মিনিটে এগিয়ে যায় আর্সেনাল। প্রথমার্ধে তারাই এগিয়ে ছিল। দ্বিতীয়ার্ধের ৬৯তম মিনিটে ভাগ্যের জোরে গোল পেয়ে যায় বার্সেলোনা। ইংলিশ মিডফিল্ডার এইন্সলি মেইটল্যান্ড-নাইলসের আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে ভালভার্দের দল।
ম্যাচ যখন শেষ হওয়ার পথে। তখনই চমক দেখান লুইস সুয়ারেজ। ৮৯ মিনিটে সার্জিও রবের্তোর উঁচু করে বাড়ানো বল দারুণ এক ভলিতে জালে জড়িয়ে দেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। সেটিই ছিল ম্যাচ জেতানো গোল। ম্যাচ শেষে বার্সা কোচ ভালভার্দে বলেন, ‘এটা উপভোগ্য একটা ম্যাচ ছিল। পরিবেশও দারুণ ছিল। আমাদের সমর্থকদের সঙ্গে আবারও মিলতে পারা আনন্দের। আমার মনে হয় আমরা ভালোই খেলেছি। তবে প্রথমার্ধে কিছুটা ছন্দের ঘাটতি ছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *