মাশরাফির নেতৃত্বে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে অনেক অদলবদল । দল থেকে সাতজন বাদ!

বিশ্বকাপের পর গত বছরের জুলাইয়ে সবশেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ দল। শ্রীলঙ্কা সফরে ওয়ানডে দলে থাকা ৭জন ক্রিকেটার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে বাদ পড়েছেন। শ্রীলংকা সফরে থাকা সৌম্য সরকার, এনামুল হক বিজয়, সাব্বির রহমান রুম্মন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও ফরহাদ রেজা বাদ পরছেন ১লা মার্চ থেকে সিলেটে শুরু হতে যাওয়া ওয়ানডে সিরিজ থেকে।

বিয়ের পিঁড়িতে বসার কারণে ছুটিতে থাকায় জিম্বাবুয়ে সিরিজ নেই ওপেনার সৌম্য সরকার। সবশেষ শ্রীলংকা সিরিজের দলে থাকলেও খেলার সুযোগ পাননি তাসকিন আহমেদ ও ফরহাদ রেজা। না খেলেই বাদ পড়েছেন তারা। চোটের কারণে জিম্বাবুয়ে সিরিজের দলে নেই মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। অফ ফর্মের কারণে বাদ পড়েছেন এনামুল হক বিজয়, সাব্বির রহমান রুম্মন ও পেস বোলার রুবেল হোসেন।

বিশ্বকাপের পর ইনজুরির কারণে শ্রীলঙ্কা সফরে ছিলেন না মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। জিম্বাবুয়ে সিরিজের দলে ফিরছেন অধিনায়ক মাশরাফি ও পেস বোলিং অলরাউন্ডার সাইফ উদ্দিন। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকের পর প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ডাক পেয়েছেন তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন এবং ওপেনার মোহাম্মদ নাইম শেখ।

দেশের হয়ে সর্বশেষ বিশ্বকাপে খেলেছেন মাশরাফি। ২০১৯ সালের ৫ জুলাই পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের পর আর দেখা যায়নি তাঁকে। এ ছাড়া দেশের মাটিতে আরো ১৫ মাস আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলেছেন ওয়ানডে অধিনায়ক।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে বাংলাদেশ দল- মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্ত, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন কুমার দাস, তাইজুল ইসলাম, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আল আমিন হোসেন, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, শফিউল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

আগামী ১ মার্চ থেকে শুরু হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। দ্বিতীয় ওয়ানডে হবে ৩ মার্চ। তিনটি ম্যাচই হবে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.