নাইট ক্লাবে অভিযান, গ্রেফতার সুরেশ রায়না ও সুজান খান!

সোমবার করোনার জন্য রাতে কার্ফু জারি করেছিল মহারাষ্ট্র সরকার। নতুন বছরকে মাথায় রেখে ২২ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত করোনা রুখতে বেশকিছু নিয়ম এনেছে স্থানীয় প্রশাসন। যা না মেনে অতিরিক্ত সময় খোলা ছিল ড্রাগন ফ্লাই নামের ক্লাবটি।
করোনাবিধি লঙ্ঘন করায় মুম্বাইয়ের একটি ক্লাবে অভিযান পরিচালনা করেছিল পুলিশ। সেখানে গ্রেপ্তার হয়েছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার সুরেশ রায়না। তার সঙ্গে পুলিশের হাতে আটক হন গায়ক গুরু রাঁধা এবং হৃতিক রোশনের সাবেক স্ত্রী সুজান খান। সোমবার গভীর রাতে ড্রাগন ফ্লাই ক্লাব থেকে ৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনের ১৮৮, ২৬৯ এবং ৩৪ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। তারা জামিনে আপাতত মুক্ত। ক্লাবটির অন্যতম মালিক বলিউড র‍্যাপার বাদশাকে খুঁজছে পুলিশ, তিনি এখন পর্যন্ত পলাতক।

রায়না গত ১৫ আগস্ট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানান। ভারতের হয়ে তিনি ১৮ টেস্ট, ২২৬ ওয়ানডে এবং ৭৮ টি-২০ খেলেছেন। আইপিএলে চেন্নাইয়ের হয়ে খেলা এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান বিশ্বের তৃতীয় এবং ভারতের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে সেঞ্চুরি করেন। এছাড়া তিনে কিংবা তার পরে নামা বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি পান তিনি।